অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলানো লাশ উদ্ধার, পরিবারের দাবী হত্যাকান্ড

0

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় কলি আকতার (২০) নামে আট মাসের অন্তসত্ত্বা এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) ভোরে আনোয়ারা সদর ইউনিয়নের জয়কালী বাজারের উত্তর পাশে এ ঘটনা ঘটে। তিনি আনোয়ারার বারখাইন ইউনিয়নের শিলাইগড়া গ্রামের আখতারুজ্জামানের স্ত্রী। তিনি স্বামীর সঙ্গে সদর ইউনিয়নের জয়কালী বাজার ৬নং ওয়ার্ডে থাকতেন বলে জানা যায়।

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস.এম দিদারুল ইসলাম সিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছি ও ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি।

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে নিহত গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের গলায় ওড়নার দাগ রয়েছে। লাশের ময়নাতদন্ত রিপোর্ট দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। এঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পালিয়ে গেছেন বলে দাবি করছেন অনেকে।

নিহত কলি আকতারের স্বজনরা অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের কয়েক মাস পর থেকে প্রাবাসী বড় ভাইয়ের বউয়ের সাথে পরকীয়ার জেরে ঝগড়াঝাঁটি হতো। একবার ঝগড়া করে পটিয়া বাপের বাড়িতেও চলে যায় কলি। কিছুদিন আগে তার স্বামী আখতারুজ্জামান বাপের বাড়ি থেকে কলিকে নিয়ে আসে।

নিহতের মা রুমি আকতার অভিযোগ করে বলেন, কলির স্বামী সকালে ফোন করে বলে আপনার মেয়ে অসুস্থ। আমি শুনে দ্রুত আনোয়ারার বাসায় এসে দেখি আমার মেয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায়। ঘরের মেঝেতে ছোপ-ছোপ রক্তের দাগ। আমার মেয়েকে তারা হত্যা করে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। আমি এ হত্যার বিচার চাই।

নিহতের চাচা সাদ্দাম হোসেন বলেন, তাদের পরকীয়া জেনে ফেলায় কলির জন্য কাল হলো। প্রতিবাদ করলে প্রায়সময় মারধর করতো তার স্বামী। আমার ভাতিজীকে আখতারুজ্জামান ও তার ভাবী মিলে হত্যা করেছে। আমরা দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm