আপাতত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হচ্ছে না: শিক্ষামন্ত্রী

0

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হবে না। যেভাবে সীমিত পরিসরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো চলছিল; সেভাবেই চলবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ সংক্রান্ত রোববার দিনভর গুঞ্জনের অবসান হলো শিক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্যে।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে সচিবালয়ে ব্রিফিংকালে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী। রোববার রাতে করোনাসংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনিসহ সংশ্লিষ্টরা। সে বৈঠকের সিদ্ধান্তগুলো জানাতে এই প্রেসব্রিফিং।

আগামী সাত দিন পর আবার করোনাসংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে বৈঠক হবে। তখন কমিটি যদি মনে করে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হবে। যেহেতু টিকা দেওয়া হয়ে যাচ্ছে, সেহেতু সমস্যা হবে না।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ১২ জানুয়ারির মধ্যে যারা এক ডোজ টিকা দিয়েছে তারা ক্লাসে আসবে, বাকিরা অনলাইনে ক্লাস করবে আর অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেবে। সবার অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়া হলে তারপর থেকে তারা সশরীরে ক্লাস করবে।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, দেশে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী মোট শিক্ষার্থী আছে ১ কোটি ১৬ লাখ ২৩ হাজার ৩২২ জন। এর মধ্যে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে ৪৪ লাখ, দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ৪ লাখ ১৯ হাজার ৫৫৪ জনকে। মোট টিকা দেওয়া হয়েছে ৪৮ লাখ ১৯ হাজার ৫৪৪ জনকে। প্রথম ডোজ বাকি আছে ৭৫ লাখ ৫৪ হাজার ৬০৬ জনের।

বিভিন্নধাপে আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে টিকাদান সম্পন্ন করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, শিক্ষার্থীদের টিকা দান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম নগরের তিনটি কনভেনশন সেন্টারে শুরু হয়েছে টিকা দান কার্যক্রম।

আগ্রাবাদের আব্দুল্লাহ কমিউনিটি সেন্টার, জামালখানের রীমা কনভেনশন সেন্টার ও সিরাজুদ্দৌলা সড়কের হল সেভেন-ইলাভেনে টিকা দেওয়া হচ্ছে। এই কার্যক্রম সপ্তাহব্যাপী চলবে এবং দুই লাখ শিক্ষার্থীকে করোনা টিকা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm