খাবারের নিম্নমান ও কর্মচারীদের দুর্ব্যবহার— চবির প্রীতিলতা হলে প্রভোস্ট অবরুদ্ধ

৮ দফা দাবি

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ছাত্রীদের আবাসিক প্রীতিলতা হলের ডাইনিংয়ের খাবারের নিম্নমান, কর্মচারীদের দুর্ব্যবহার ও আবাসিক শিক্ষকদের নিয়মিত না আসার প্রতিবাদে হলের প্রভোস্ট রুম ও ডাইনিং এ তালা দিয়েছে ছাত্রীরা। পরবর্তীতে প্রভোস্ট এবং প্রক্টরিয়াল বডির আশ্বাসে অবরোধ সরিয়ে নেয় তারা।

বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) সাড়ে ১১টায় হলের প্রভোস্ট ও আবাসিক শিক্ষকরা মিটিংয়ের উদ্দেশ্যে প্রভোস্ট রুমে প্রবেশ করলে ছাত্রীরা বাইরে থেকে তালা লাগিয়ে দেয়। এসময় তারা ৮ দফা দাবি জানায়।

দাবিগুলো হল—
১. হাউস টিউটরদের নিয়মিত হলে উপস্থিত থাকা
২. আবাসনের সমতা বন্টন
৩. হল-ডায়নিং ও ক্যান্টিন কর্মচারীদের অশোভোন আচরণ প্রতিকার করা
৪. হলের কর্মকর্তা, কর্মচারীদের ইচ্ছাকৃত বিলম্ব রোধ করা
৫. পানি সংকট নিরসন করা
৫. হলের যেকোনো সংস্কার কাজ দুই কর্মদিবসের মধ্যে সম্পন্ন করা
৭. একজন দুটি কাজের দায়িত্ব নিতে পারবে না
৮. খাবারের মান বাড়াতে হবে এবং মূল্যতালিকা প্রভোস্ট কর্তৃক স্বাক্ষরিত হতে হবে, পানির ফিল্টার বাড়াতে হবে।

এসময় ছাত্রীরা বলেন, আমাদের হলের ক্যান্টিনের খাবারের মান খুবই খারাপ। এ নিয়ে অভিযোগ জানালে কর্মচারীরা আমাদের সাথে অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করেন। বিষয়টা হল কর্তৃপক্ষকে জানালেও তারা এখন পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেয় নি। সর্বশেষ আজ সকালে আমাদের এক ছাত্রীকে একা পেয়ে বিভিন্নভাবে হেনস্তা করে ক্যান্টিনের ম্যানাজার হেলাল। তাই উপায়ান্তর না দেখে আমরা অবরোধ করতে বাধ্য হয়েছি।

প্রীতিলতা হলের অবাসিক ছাত্রী মাহ্জবীন শুচী বলেন, খাবারের মান নিয়ে বারবার অভিযোগ দেওয়ার পরও ক্যান্টিন কর্তৃপক্ষ মান না বাড়িয়ে উল্টো ছাত্রীদের সাথে দুর্ব্যবহার করে। সর্বশেষ আজকে এক ছাত্রীকে একা পেয়ে তাকে নানাভাবে হেনস্তা করে ক্যান্টিন ম্যানাজার হেলাল। তাই ছাত্রীরা ক্ষুব্ধ হয়ে প্রভোস্ট রুমে তালা দেয়।

অপরদিকে এ অভিযোগ অস্বীকার করেন ক্যান্টিন ম্যানাজার হেলাল। তিনি বলেন, আমি ডাইনিংয়ে খুব কম সময়ই থাকি। আমি কোনো ছত্রীর সাথে খারাপ ব্যাবহার করিনি।

প্রীতলতা হলের প্রভোস্ট পারভিন সুলতানা বলেন, আমরা ছাত্রীদের দাবিগুলো পেয়েছি৷ বাদবাকি অভিযোগগুলোও শোনা হবে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আহসানুল কবির বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। এসে দেখি ছাত্রীরা প্রভোস্ট রুমে তালা দিয়েছে। আমরা ছাত্রীদের অভিযোগ ও দাবিগুলো পেয়েছি। এর প্রেক্ষিতে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm