চট্টগ্রামে করোনা— ৫০ দিন পর পঞ্চাশের নীচে শনাক্ত

0

গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে দুই হাজার ২৪৬ জনের নমূনা পরীক্ষা করে ৩৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। যা শতকরা হিসেবে ১ দশমিক ৫৫ শতাংশ। এদিন করোনায় চট্টগ্রামে কেউ মারা যাননি।

শনাক্তের সংখ্যা ৫ জানুয়ারির পর এই প্রথম ৫০ জনের নীচে নামলো। গত ৪ জানুয়ারি শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৩৫ জন। আর ৫ ও ৬ জানুয়ারি ৫৩ জন করে করোনা শনাক্ত হয়েছিল। এরপর সেটি গিয়ে ঠেকেছিল দেড় হাজারের ঘরে। ধীরে ধীরে শনাক্তের সংখ্যা কমে তা ৫০-এর নীচে নামলো।

বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। আক্রান্তদের ১২ জন চট্টগ্রাম নগরের বাসিন্দা, অপর ২৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

২০২০ সালের ৩ এপ্রিল চট্টগ্রামে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এ পর্যন্ত চট্টগ্রামে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো এক লাখ ২৬ হাজার ২৫৯ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৯১ হাজার ৮২৪ জন নগরের বাসিন্দা, ৩৪ হাজার ৪৩৫ জন বিভিন্ন উপজেলার।

৯ এপ্রিল ২০২০ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে প্রথম কোনো ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছিল। জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৩৬২ জনের। এর মধ্যে ৭৩৪ জন নগরের, বিভিন্ন উপজেলায় মৃত্যু হয়েছে ৬২৮ জনের।

বিশেষজ্ঞদের অভিমত হলো— শনাক্তের হার ৫ শতাংশের কম হলে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বলা যাবে। আর তা যদি ১ শতাংশের কম হয় তবে করোনামুক্ত বলা যাবে। সে হিসেবে চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের দ্বারপ্রান্তে বলা চলে।

এদিকে, ২৬ ফেব্রুয়ারির পর বন্ধ হচ্ছে করোনা টিকার প্রথম ডোজ প্রদান। এই ঘোষণায় প্রতিটি টিকা কেন্দ্র ভীড় করছে সংখ্য মানুষ। সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে টিকা গ্রহণের আহ্বান জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm