চট্টগ্রাম নগরে স্বামীর হাতে প্রাণ গেলো গৃহবধু রাবেয়ার

0

চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরে রাবেয়া খাতুন (৫০) এক নারীকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী মোহাম্মদ জামিনের বিরুদ্ধে। স্ত্রীকে হত্যারপর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছে। মিম (১০), মায়া (৩) নামের দুটি সন্তান রয়েছে রাবেয়া খাতুনের।
শনিবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হালিশহর থানার এল ব্লকের ৪ নাম্বার রোড়ের পানির টাংকির কাছে এ ঘটনা ঘটে।

হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জহির উদ্দিন চট্টগ্রাম খবরকে বলেন, কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে স্বামী জামিন তার স্ত্রী রাবেয়া খাতুনের গলায় ছুরি ঢুকিয়ে দেয়। আহত অবস্থায় রাবেয়া নামে এ নারীকে হালিশহর একটি বেসরকারী হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে জামিন। তাকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

স্থানীয়রা জানান, এ-ব্লক ৪ নম্বর রোডে টিনশেড বাসায় ভাড়া থাকতো ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী কিশোরগঞ্জের মোহাম্মদ জামিন। ওই বাসার কেয়ারটেকার হলেন রাবেয়ার পিতা হাটহাজারীর মানিক মিয়া।
মানিক মিয়া জানান, ৯ মাস পূর্বে রাবেয়া খাতুনের সাথে জামিনের বিয়ে হয়। রাবেয়ার আগের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে। ঘটনার কিছুক্ষণ আগে রাবেয়া তার স্বামীর জন্য দোকান থেকে নাস্তা নিয়েছিল। হঠাৎ মেয়ের চিৎকার শুনে আমি গিয়ে দেখি আমার মেয়ে মাটিতে পড়ে গেছে। তার গলা কাটা।

তিনি আরও বলেন, আহত অবস্থায় আমরা রাবেয়াকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

প্রতিবেশীদের দাবী, ভাঙ্গারি ব্যবসায়ী জামিন নিয়মিত নেশা করতো। স্ত্রী রাবেয়ার সাথে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নিয়মিত ঝগড়া হতো।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm