চবির একাডেমিক কাউন্সিল নির্বাচন: প্রশাসনপন্থীদের ভরাডুবি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) একাডেমিক কাউন্সিল নির্বাচনে বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ প্রগতিশীল শিক্ষকদের হলুদ দল নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। ছয়টি পদের মধ্যে পাঁচটিতেই তাদের প্রার্থী জয়লাভ করেছে। তবে নির্বাচনে হলুদ দল থেকে বেরিয়ে আসা প্রশাসনপন্থী প্রার্থীদের ভরাডুবি হয়েছে।

রোববার (১৫ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে চলে ভোটগ্রহণ। এরপর ভোট গণনা ও যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে বিকেল ৫টার দিকে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচনে সহযোগী অধ্যাপক পদে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের প্রার্থী ওশানোগ্রাফি বিভাগের মো. এনামুল হক নীল ও উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের ড. তাপস কুমার ভৌমিক।

সহকারী অধ্যাপক পদে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের প্রার্থী হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের আবদুল্লাহ আল মামুন ও নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের তনিমা সুলতানা।

প্রভাষক পদে হলুদ দলের প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের হাসনাইন ইস্তেফাজ, একই পদে প্রশাসনপন্থী শিক্ষকদের প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তাহসিন আহমেদ ফাহিম।

প্রসঙ্গত, চবি একাডেমিক কাউন্সিলের নির্বাচনে সদস্য হিসেবে দুইজন করে সহযোগী অধ্যাপক, সহকারী অধ্যাপক ও প্রভাষক নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে ৩ অংশ থেকে মোট প্রার্থী ছিলেন মোট ১৮ জন। অপরদিকে দলীয়করণ করে শিক্ষক নিয়োগ চলমান থাকার অভিযোগ তুলে পূর্বেই নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছিলেন বিএনপি ও জামায়াতপন্থি শিক্ষকেরা।

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।