জহুর হকার্স মার্কেটে আগুন— ক্ষতি ৩৭ লাখ, রক্ষা ৩ কোটি

0

শুক্রবার রাতের আগুনে নগরীর জহুর হকার্স মার্কেটে প্রায় ৩৭ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রন কক্ষ। ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স কর্মীদের তৎপরতায় প্রায় তিন কোটি টাকার মালামাল আগুন থেকে রক্ষা পেয়েছে বলেও দাবী তাদের।

শনিবার (১২ মার্চ) সকালে আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে এমন তথ্য জানানো হয়।

অপর দিকে পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো সবগুলোই প্রয়াত মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী পরিবারের বলে জানিয়েন তাঁর সহধর্মীনি ও নগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন। তিনি চট্টগ্রাম খবরকে বলেন, ‘পুড়ে যাওয়া সবগুলো দোকানই আমাদের।’

ফায়ার সার্ভিসের হিসাবে সাতটি পাকা এবং চারটি সেমি পাকা মিলে পুড়ে যাওয়া দোকানের সংখ্যা ১১টি। তবে আগুন নিভাতে গিয়ে আশপাশের আরও কিছু দোকানের মালামাল পানিতে নষ্ট হয়েছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জহরলাল হাজারী বলেন, পুড়ে যাওয়া এবং ক্ষতিগ্রস্থ দোকানগুলো মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সাহেবদের পরিবারের। ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের পাশে আমরা আছি।

জহুর হকার্স মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ফজলুল আমিন বলেন, বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। মার্কেটের দারোয়ানও আমাদের তাই জানিয়েছেন। বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তবে আর্থিক পরিমাণ এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।

এর আগে ২০১৯ সালের ১৯ অক্টোবর জহুর হকার্স মার্কেটে ভয়াবহ আগুনে পুড়ে যায় শতাধিক দোকান। আগুন পার্শ্ববর্তী জালালাবাদ মার্কেটেও ছড়িয়ে পড়ে। দুটি মার্কেট আগুনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, জহুর হকার্স মার্কেট কম দামে গার্মেন্টস পণ্যের জন্য বিখ্যাত। দেশে তো বটেই, এর সুনাম বিদেশেও রয়েছে। বাংলাদেশে খেলতে আসা বিদেশী ক্রিকেটারদের পরিবারসহ নিয়মিত পর্যটকরাও এই মার্কেটে কেনাকাটা করতে দেখা যায়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm