নিরাপদ প্রজন্ম গড়তে নিরাপদ সড়ক জরুরি

0

‘ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য নিরাপদ সড়ক গড়ে তুলতে হবে। যাত্রা নিরাপদ ও নিশ্চিত করতে সড়কও নিরাপদ করতে হবে। আমাদের বাঁচতে ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে নিরাপদ রাখতে রাস্তা নিরাপদ করতে হবে। তাই নিরাপদ প্রজন্ম গড়তে নিরাপদ সড়ক জরুরি। এ জন্য দরকার সবার মানসিকতার পরিবর্তন। নিতে হবে সমন্বিত উদ্যোগ ও পরিকল্পনা। তবেই তৈরি হবে নিরাপদ সড়ক।’

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানাধীন চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের আজিম-হাকিম স্কুল এন্ড কলেজ মিলনায়তনে ‘ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ সড়ক চাই’ শীর্ষক প্রতিপাদ্য বিষয়ে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের সড়ক নিরাপত্তা সম্পর্কে সচেতন করতে অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডায়মন্ড সিমেন্ট লিমিটেডের সহযোগিতা ও নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন আজিম-হাকিম স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান নির্বাহী মাস্টার হাফেজ আহমদ।

নিরাপদ সড়ক চাই মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিক আহমেদ সাজীবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক চৌধুরী ফরিদ, প্রধান বক্তা ছিলেন ডায়মন্ড সিমেন্ট লিমিটেডের পরিচালক লায়ন মো. হাকিম আলী, বিশেষ অতিথি ছিলেন কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সেলিম হক, কর্ণফুলী নদী সাম্পান মাঝি কল্যাণ সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি এস.এম পেয়ার আলী।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আজিম-হাকিম স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক মনজুর আলম, সহকারী শিক্ষক অখিল চন্দ্র পাল, উৎপল রায়, খলিলুর রহমান রাজীব, মো. সোহেল রানা, মো. শহিদুল ইসলাম, সৈকত উদ্দিন প্রমুখ।

প্রধান অতিথি সাংবাদিক চৌধুরী ফরিদ বলেন, কেবল সরকারের ওপর নির্ভরশীল হলে চলবে না। কিছু দায়িত্ব আমার, আপনারও আছে। কাজেই চালক, পথচারী ও শিক্ষার্থী দুর্ঘটনার দায়-দায়িত্ব সকলেরই আছে। সেটা মনে রেখে সবাই নিজেদেরকে সুরক্ষিত করতে সচেষ্ট হলেই ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে নিরাপদ সড়ক উপহার দেওয়া সম্ভব হবে। নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনটির এটি একটি চমৎকার উদ্যোগ।

প্রধান বক্তা লায়ন মো. হাকিম আলী বলেন, আমরা মনে করি যারা এখানে উপস্থিত হয়েছেন, তারা আশাপাশের প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সবগুলো বিষয় নিয়ে অবহিত এবং সচেতন করে তোলাই হবে আমাদের দায়িত্ব। তাহলে পর্যায়ক্রমে শিক্ষার্থীদের হাত ধরেই সড়ক নিরাপদ হয়ে ওঠবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm