পাসপোর্ট ছাড়া বিশেষ ব্যবস্থায় দেশে ফিরলেন আলী হোসেন

0

পাসপোর্টের খোঁজ না মেলায় দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে শেষ পর্যন্ত দেশেই ফিরে আসতে হলো কক্সবাজারের সন্তান আলী হোসেনকে। বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রাণালয়ের শ্রম কল্যাণ বিভাগের সহযোগিতায় তিনি দেশে ফিরলেও এখনো দুবাই ফেরার স্বপ্নে বিভোর তিনি।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ তিনি ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। বিমানবন্দরে আর্মড পুলিশ তাকে সহযোগিতা করছে বলে চট্টগ্রাম খবরকে নিশ্চিত করেন আলী হোসেন।

এপিবিএন-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. জিয়াউল হক চট্টগ্রাম খবরকে বলেন, রেমিট্যান্স যোদ্ধা আলী হোসেনের পাসপোর্ট খুঁজে পেতে পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা হবে।

আলী হোসেন জানান, সকালে বিমানবন্দরে নামার পর থেকে পুলিশ তার বিষয়টি জেনে তাকে সহযোগিতা করছে। যদি পাসপোর্ট পাওয়া না যায় সেক্ষেত্রে তিনি নতুন পাসপোর্ট নিয়ে আবার দুবাই ফিরবেন।

দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তানের জনক আলী হোসেন ২০০৭ থেকে আরব আমিরাতে ছিলেন। প্রবাস জীবন তার পরিবারের স্বচ্ছলতা এনেছে জানিয়ে আলী হোসেন বলেন, আমার দুবাইয়ের কফিল খুব ভালো মানুষ। তিনিও দুবাই বিমানবন্দরে আমাকে দেখতে এসেছিলেন। পাসপোর্ট পুরাতনটা পেলে পরদিনই দুবাই চলে যেতে পারবো।

আর যদি পুরাতন পাসপোর্ট (EF0494452) না পান সেক্ষেত্রে নতুন পাসপোর্ট করে আবার ভিসা ইস্যু করতে হবে এবং সেক্ষেত্রে তার ওই কফিল সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন বলেনও জানান আলী হোসেন। কিন্তু সে ক্ষেত্রে তার আরো অনেক টাকার বোঝা বইতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আলী হোসেন দুবাইয়ে জাহেদ নামে এক বাংলাদেশী ব্যবসায়ীর দোকানে কাজ করতেন। আলী হোসেনের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে জাহেদ আবেগে কেঁদে ফেলেন। তিনি চট্টগ্রাম খবরকে বলেন, আলী হোসেন দোকানের অন্যান্য স্টাফের তুলনায় অনেক দক্ষ ও সৎ। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও তাকে আইনী বাধ্যবাদকতার জন্য রাখতে পারিনি। আশা করছি তার পাসপোর্ট জটিলতা কেটে সে আবার দুবাই ফিরবে।

এর আগে ৭ জানুয়ারি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইমিগ্রেশন করে ৫ ঘন্টা ৪৫ মিনিট আকাশ পথে উড়ে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান কক্সবাজারের ছেলে আলী হোসেন। কিন্তু সেখানে ইমিগ্রেশন করতে গিয়ে দেখেন ব্যাগে তার পাসপোর্ট নেই।

১০ জানুয়ারি তার বিষয়ে দেশের গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর তার সহযোগিতায় এগিয়ে আসে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের শ্রম কল্যাণ বিভাগ। শ্রম বিভাগের সহযোগিতায় আলী হোসেন ট্রাভেল পারমিট নিয়ে দেশে ফিরেছেন।
আরও পড়ুন
দুবাই বিমানবন্দর থেকে দেশেই ফিরতে হবে কক্সবাজারের আলী হোসেনকে
দুবাই বিমানবন্দরে দিশেহারা কক্সবাজারের ছেলে

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm