প্রবাসী ৩ সাংবাদিক স্মরণে আমিরাতে বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের শোকসভা

প্রয়াত তিন প্রবাসী সাংবাদিকের স্মরণে শোকসভা করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পেশাদার গণমাধ্যমকর্মীদের সংগঠন বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব ইউএই।
সদস্য প্রয়াত এই তিন সাংবাদিকের মধ্যে দুইজন সৌদি আরব প্রবাসী। এরা হলেন- একাত্তর টেলিভিশনের রিয়াদ প্রতিনিধি মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ও চ্যানেল আইর রিয়াদের চিত্রগ্রাহক মো. হানিফ মিয়া। প্রয়াত অপর সাংবাদিক হলেন মালয়েশিয়া থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক প্রবাসী কন্ঠ পত্রিকার সম্পাদক গৌতম কুমার রায়।

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে দুবাইয়ের একটি হোটেলে এই শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি শিবলী আল সাদিক। সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান জনি।

শোকসভায় অনলাইনে যুক্ত হন সৌদিআরব প্রবাসী সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মোহাম্মদ আবুল বশির ও মালয়েশিয়া বাংলাদেশ কমিউনিটি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোস্তফা ইমরান রাজু।

বক্তারা প্রয়াত তিন সাংবাদিকের কর্মজীবন সম্পর্কে আলোচনা করেন। এসময় তারা দেশের বাইরে বাংলাদেশি গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের প্রতি প্রতিষ্ঠানগুলোকে আন্তরিক হবার আহ্বান জানান। বিশেষ করে প্রবাসী সাংবাদিকদের শ্রমের মূল্যায়ন ও পেশাগত সুযোগ-সুবিধা প্রদানের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

সাংবাদিক নেতারা বলেন, ‘প্রবাসী সাংবাদিকদের শ্রম ও ত্যাগের বিনিময়ে প্রতিনিয়ত বহির্বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক মজবুত হচ্ছে। পাশাপাশি প্রবাসে কর্মরত কোটি অভিবাসীকর্মীর স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি তুলে ধরে তাদের সমস্যা সমাধানের সুষ্ঠু পথ নির্ণয়ের জন্যেও কাজ করে যাচ্ছেন প্রবাসী সাংবাদিকরা।
এছাড়া বৈধ পথে রেমিট্যান্স বৃদ্ধিতেও তাদের লেখনীর মাধ্যমে নানামুখী সচেতনতা চালিয়ে যাচ্ছেন। অথচ এদের অনেকে দীর্ঘদিন বাংলাদেশি গণমাধ্যমে কাজ করেও নূন্যতম সম্মানী পান না। এমনকি মৃত্যুবরণ করা প্রবাসী সাংবাদিক পরিবারেরও খোঁজ-খবর রাখে না মিডিয়া হাউজগুলো। প্রতিষ্ঠানের এমন অবমূল্যায়ন প্রবাসী সাংবাদিকতাকে দিন দিন নিরুৎসাহিত করছে।’

এসময় শোকসভায় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব ইউএইর সিনিয়র সহ সভাপতি মামুনুর রশীদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল শাহীন, সদস্য শামসুল হক, ইরফানুল ইসলাম, জাসেদুল ইসলাম, শাফায়েত উল্লাহ, খোরশেদুল আলম, মোহাম্মদ নিয়াজ ও মেহেদী রুবেল প্রমুখ।

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।