বান্দরবানে বিলুপ্ত প্রজাতির পেঁচা উদ্ধার

0

বান্দরবানে বিলুপ্ত প্রজাতির মেছো খয়েরী বাদামী পেঁচা উদ্ধার করে অবমুক্ত করেছে বনবিভাগ।

শ‌নিবার (১২মার্চ) সকা‌ল ১১টায় বান্দরবান সদর উপজেলার ময়নাতলি রিজার্ভ এলাকায় এই পেঁচাটি অবমুক্ত করা হয়।

জানাযায়, গত শুক্রবার নজরুল ইসলা‌মের খামা‌রের পাশে এক‌টি বিলুপ্ত প্রজা‌তির মেছো খয়েরী বাদামী পেঁচা অসুস্থ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে বাগানের কেয়ারটেকার আদর বাবু তঞ্চঙ্গ‌্যা পেঁচাটিকে খাবার দিয়ে বাগান বাড়িতে স্বযত্নে রাখেন।

পরে বাগান মালিক একু‌শে টে‌লি‌ভিশ‌নের বান্দরবান প্রতি‌নি‌ধি মো. নজরুল ইসলাম (টিটু) ঘটনাস্থলে গিয়ে বন বিভাগকে বিষয়টি জানালে বনবিভাগ পেঁচাটি উদ্ধার করে।

বান্দরবান বনবিভাগীয় কর্মকর্তা হক মাহবুব মোরশেদ সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নজরুল ইসলামের বাগান থে‌কে এক‌টি বিলুপ্ত প্রজা‌তির মেছো খয়েরী বাদামী পেঁচা উদ্ধার করে বান্দরবান বনবিভাগের সংরক্ষিত এলাকায় অবমুক্ত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এ প্রজাতির পেঁচা প্রধানত পাওয়া যায় উপক্রান্তীয় অঞ্চলে এবং বনাঞ্চলে। এদের প্রধান বিস্তার হল বাংলাদেশ, ভুটান, চীন, ভারত, লাওস, মায়ানমার, নেপাল, তাইওয়ান এবং ভিয়েতনাম।

এরা প্রধানত মাছ খায়। এছাড়াও কাঁকড়া, চিংড়ি, ব্যাঙ, ব্যাঙ্গাচি, টিকটিকি, সাপ এবং ছোটো ছোটো প্রাণী খায়। যেমন গন্ধমূষিক, ইঁদুর, বাদুড় ইত্যাদিও খেয়ে থাকে।

এছড়াও পাখি শিকার করে, যার মধ্যে একটা হল মান্দারিন হাঁস, যাদেরকে প্রধানত তাইওয়ানে দেখতে পাওয়া যায়। এই পেঁচা একটা নদীর ওপরে ৫ দশমিক ৫ থেকে ৭ দশমিক ৭ কিলোমিটার জায়গা নিজের দখলে রাখে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm