বাহারি সব পিঠা নিয়ে আনোয়ারা সরকারি কলেজের উৎসব

চারদিকে উৎসবমুখর পরিবেশ। স্টলে স্টলে সারি সারি পিঠার মনোমুগ্ধকর প্রদর্শন। কেউ বানিয়েছেন হৃদয় হরন, কেউবা বাহারি গোলাপ, বউপিঠা, পুলি পিঠা ও চন্দ্র পুলিসহ নানা নামের ও রংয়ের মুখরোচক পিঠা। শীতের বাতাসে হরেক রকম এসব পিঠা-পুলির গন্ধে মেতে ওঠে চারদিক। সেই সাথে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভিড় রাঙিয়ে তুলে পুরো অঙ্গন।

বলছিলাম আনোয়ারা সরকারি কলেজ কর্তৃক আয়োজিত পিঠা উৎসবের কথা। বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সকালে কলেজ ক্যাম্পাস চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় এ পিঠা উৎসব।

সরজমিনে দেখা গেছে, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য নানা ধরনের মুখরোচক এ পিঠা প্রদর্শনী করে পুরস্কার তুলে নিতেই বাহারি পিঠা তৈরি করে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করেন শিক্ষার্থীরা।

পিঠা উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, পিঠা উৎসব কমিটির আহ্বায়ক সমাজ বিজ্ঞানের প্রভাষক সৈয়দা কুমকুম খায়ের। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আবদুল্লাহ আল মামুন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কলেজের উপাধ্যক্ষ মুহাম্মাদ রিদুওয়ানুল হক, সাবেক ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মীর কাশেম, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মোছলেহ উদ্দিন সিরাজী, প্রভাষক বাবু সুজন আচার্য্য, ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক মিসেস রুবিনা আকতার, নীলিমা রাণী মহাজন, সিদুল কান্তি বড়ুয়া, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি মু. ফারুকুল ইসলাম, ছাত্রনেতা আবু আহসান বাবলু রাজ, মিজানুর রহমান হিরু, ফয়সাল হাবিব।

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।