বিএনপি প্রায় সময় মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য দেয়- তথ্যমন্ত্রী

0

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি আসলে প্রায় সময় বিদেশীদের উদ্বৃতি দিয়ে নানা ধরণের বক্তব্য দেয়, যার বেশির ভাগই মিথ্যা এবং বানোয়াট। জার্মান রাষ্ট্রদুতের ক্ষোভ প্রকাশ করার মধ্য দিয়ে এটিই প্রমাণিত হয়।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে এমন ঘটনা আগে কখনো আমরা দেখি নাই, একজন রাষ্ট্রদুত প্রকাশ্যে একটি রাজনৈতিক দলের নেতাদের বক্তব্যের ক্ষোভ প্রকাশ করতে। যেটি বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে জার্মানির মত একটি দেশের রাষ্ট্রদূত ক্ষোভ প্রকাশ করছে। অর্থাৎ বিএনপি রাষ্ট্রদূতের বক্তব্যকে বিকৃত করে বলছে।

শনিবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগরীর বহদ্দারহাটের আর বি কনভেনশন সেন্টারে ইফতার পূর্ব ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এসব কথা বলেন। চট্টগ্রাম নগরে বসবাসকারী তথ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দাদের সম্মানে এই ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

বিএনপির সাথে বৈঠকের ভুল ব্যাখ্যা দেয়া হয়েছে জার্মান রাষ্ট্রদূতের দাবী এবং বিএনপি মহাসচিব বলেছেন জার্মান রাষ্ট্রদূত মিথ্যা বলছেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, জার্মান রাষ্ট্রদূতের সাথে বিএনপির যে বৈঠক ছিল সেই বৈঠকে জার্মান রাষ্ট্রদূত যেটি বলেছেন সেটিকে বিকৃতভাবে বিএনপি মিডিয়ার সামনে উপস্থাপন করেছে। জার্মান রাষ্ট্রদূত যেটি বলেননি সেটি তারা মিডিয়ার সামনে বলেছেন। বিদেশিদের উদ্বৃতি দিয়ে বিএনপি যে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বক্তব্য দেন এগুলোর অনেকগুলোই যে মিথ্যা এবং বানোয়াট সেটিই প্রমাণিত হয়।

তিনি বলেন, বিএনপির রাজনীতিতো জনগণের সাথে নয়, তারা ক্ষণে ক্ষণে বিদেশিদের কাছে দৌঁড়ে যায়, আবার বিদেশিদের কাছে চিঠি লিখে বাংলাদেশকে সাহায্য বন্ধ করার জন্য। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব নিজের স্বাক্ষরে আমেরিকার কংগ্রেসম্যানদের কাছে চিঠি লিখেছিলেন বাংলাদেশকে সাহায্য বন্ধ করার জন্য।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, বিএনপি যে অপরাজনীতি করে এবং বিদেশীদের সাথেও মিথ্যাচার ও অপরাজনীতি করে সেটির প্রমাণ হচ্ছে বিএনপির বক্তব্যে জার্মাান রাষ্ট্রদুতের ক্ষোভ প্রকাশ করা।

ঢাকা নিউ মার্কেটের ঘটনায় ছাত্রলীগ যুক্ত মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, নিউ মার্কেটের ঘটনায় বিএনপি যুক্ত বিএনপির স্থানীয় নেতৃবৃন্দ যুক্ত, যখন এই ঘটনা শুরু হয় তখন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার উদ্দেশ্যে এবং একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরী করার লক্ষ্যে স্থানীয় বিএনপির নেতারা দোকান কর্মচারী এবং ছাত্রদের মধ্যে সংঘটিত বচসার মধ্যে ডুকে পড়ে ঘি ঢেলেছে। একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরী করার চেষ্টা করেছে।

মির্জা ফখরুলকে মিথ্যাচারে চ্যাম্পিয়ান উল্লেখ করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, একটি সামান্য ঘটনায় এতবড় ঘটনা ঘটার কোন কারণ ছিলনা। পুলিশ ভিডিও ফুটেজ দেখে পরীক্ষা নিরীক্ষা করেই আসামীদের গ্রেফতার করছে। সেই কারণেই বিএনপি নেতাদের কথা এসেছে।

তিনি বলেন, কোন জায়গায় যদি কোন গন্ডগোল লাগে সেখানে সেটির আশ্রয় নিয়ে বিএনপি দেশে যে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরী করতে চাই নিউ মার্কেটের ঘটনাটা সেটির একটি প্রমান। এখন নিজেদের মুখোশ উম্মোচিত হয়েছে বিধায় নানা ধরণের কথা বলছেন বিএনপি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm