বিয়ের মেহেদির রং হাতে নিয়েই পৃথিবী ছেড়ে গেলেন ফাহমিদা

0

চট্টগ্রাম মেডিকেল সেন্টারে গত ৯ মার্চ বিয়ে হয় মাহমুদুল হাসান নামের এক তরুণের সঙ্গে ক্যানসার আক্রান্ত ফাহমিদার। কিন্তু বিয়ের ১২ দিন না পেরুতেই এলো দুঃসংবাদ। বিয়ের মেহেদির রং হাতে নিয়েই পৃথিবী ছেড়ে চলে গেলেন ক্যান্সারে আক্রান্ত সেই ফাহমিদা কামাল।

সোমবার (২১ মার্চ) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নগরীর ও আর নিজাম রোডের মেডিকেল সেন্টারের এইচডিইউতে মৃত্যু বরণ করেন তিনি। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফাহমিদার মামা এস এম আশরাফুল আরিফ।

তিনি বলেন, বিয়ের পর ফাহমিদাকে শুধু একদিনের জন্য বাসায় আনা হয়। পরে ১৫ মার্চ আবারও তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল (রোববার) দুপুরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। আজ সকাল সাড়ে ৭টায় আমাদের ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে যায় ফাহমিদা।

গত ৯ মার্চ রাতে মেডিকেল সেন্টারের বেডে জীবন মৃত্যুর সন্নিকটে দাঁড়িয়ে থাকা ভালোবাসার মানুষ ফাহমিদাকে বিয়ে করেন হাসান। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরলে গণমাধ্যমসহ সারা দেশব্যাপি আলোড়ন সৃষ্টি হয়। ফাহমিদা ও বর হাসানের জন্য সবাই দোয়া করতে থাকে এবং দৃষ্টান্ত সৃষ্টিকারী তাদের ত্যাগে ও অমর প্রেমের ইতিহাস গড়ায় তারা প্রশংসায় ভাসতে থাকে।

গত ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে ফাহমিদার শরীরে রেক্টাম ক্যান্সার ধরা পরলে সাথে সাথে তাকে ঢাকা এভারকেয়ার এবং পরে ভারতের টাটা মেমোরিয়াল হসপিটালে উন্নত সবধরনের চিকিৎসা করানো হয়। এক পর্যায়ে ডাক্তাররা আশা ছেড়ে দেন এবং তারা আর কোন চিকিৎসা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিলে তাকে এই মাসের ৫ তারিখ দেশে নিয়ে এসে চট্টগ্রামের মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসায় রাখা হয়।

তখন ক্রমাগতভাবে তার শাররীক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে তার ভালোবাসার প্রেমিক মাহমুদুল হাসান ৯ মার্চ রাতে হসপিটালের বেডে তাকে বিয়ে করেন। সেই থেকে হাসান ও তার পরিবার ফাহমিদার পাশে ছিলেন।

এমএফ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm