শুধু বঙ্গবন্ধুর নামে স্লোগান দিলেই দায়িত্ব ফুরিয়ে যায় না- ডা: দিপু মনি

0

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি বলেছেন, শুধু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নামে স্লোগান দিলেই বঙ্গবন্ধু ও তার আদর্শকে ধারণ করা যায় না। শুধুমাত্র স্লোগান দিয়েই দায়িত্ব ফুরিয়ে যায় না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করতে হলে তার দেখানো পথে নিজেকে চালাতে হবে। তিনি যেভাবে বাঙালী জাতির পেছতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েছিলেন আমাদেরও তার সেই আদর্শকে মনে ধারণ করে দেশ ও জাতির কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত করতে হবে।

শনিবার (২৬ মার্চ) স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শহিদ আব্দুর রব হলের মাঠে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে অনলাইনে যুক্ত হয়েছিলেন।

শুধু বঙ্গবন্ধুর নামে স্লোগান দিলেই দায়িত্ব ফুরিয়ে যায় না- ডা: দিপু মনি 1

এসময় তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের শিখিয়ে গিয়েছিলেন কীভাবে অন্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হয়। তিনি আমাদের শিখিয়েছেন কীভাবে নিজেদের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম করতে হয়। একটি দেশকে স্বাধীন করার জন্য যে সাহসের প্রয়োজম তা তিজি বাঙালী জাতির বুকে তৈরি করে দিতে সক্ষম হয়েছিলেন।

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় আজ দেশের শিক্ষা, স্বাস্থ্য বানিজ্যসহ সব ক্ষেত্রে যে অর্জন তার সবকিছুরই ভিত তৈরি করে গিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

১৯৭১ সালের পর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় এক লাফে অনেক দূর বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে নির্মভাবে হত্যার পর থেকে দেশের মাথাপিছু আয়ে ধ্বস নেমে আসে। এর পর থেকে আমরা ধুকে ধুকে কখনো এগিয়েছি আবার কখনো পিছিয়েছি। কিন্তু এই সময়ে এসে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় আমরা মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অনলাইনে যুক্ত হয়েছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারের সভাপতিত্বে ও প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক বেনু কুমার দে, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান।

এছাড়াও, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলসমূহের প্রভোস্টবৃন্দ, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পর্ষদের কর্মকর্তা-কর্মচারিবৃন্দ ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm