স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘পরিবর্তনের নায়ক এরশাদ মাহমুদ’র সূর্যমুখী

0

খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ং সম্পন্ন হওয়ার যে ভিশন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা জাতিকে দেখিয়েছে তাকে প্রেরণা হিসেবে নিয়েছেন রাঙ্গুনিয়ার সুখ বিলাসের এরশাদ মাহমুদ। তিনি বিশটিরও বেশী মৎস্য প্রোজেক্ট, আমের বাগান, লিচু, পেঁপে, মাল্টা, লেবুসহ হরেক রকম বাগান, গরুর খামার, হাঁস-মুরগীর খামার করে গ্রামের বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন।

সুখবিলাস ফিশারিজ এন্ড প্লানটেশন নামের খামারে প্রতিপালিত হচ্ছে বিলুপ্ত প্রায় গয়ালও। আর গ্রামের বেকারদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি, জাতীয় খাদ্য চেইনে বড় অবদানের স্বীকৃতিও হিসেবে সুখবিলাস ফিশারিজ এন্ড প্ল্যানটেশনের মালিক এরশাদ মাহমুদের হাতে উঠেছে জাতীয় পদকও। চ্যানেল আই কর্তৃক স্বীকৃত ভূষিত হয়েছেন ‘পরিবর্তনের নায়ক’ খেতাবে।

কৃষিতে এই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় তিনি এবার দুই একর জমি জুড়ে চাষ করেছে সূর্যমুখী ফুলের চাষ। সূর্যমুখী ফুলের সাথে ছবি তুলতে এবং দৃষ্টি নন্দন এই ফুলের বাগান দেখতে দূরদুরান্ত থেকে ছুটে আসছেন অনেক পর্যটক।

স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘পরিবর্তনের নায়ক এরশাদ মাহমুদ’র সূর্যমুখী 1

মৎস্য খামারী হিসেবে সরকারিভাবে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে পুরস্কৃত হওয়ার পাশাপাশি ২০১৩ সালে জাতীয় পর্যায়েও সফল মৎস্য খামারী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেছিলেন এরশাদ মাহমুদ।

স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘পরিবর্তনের নায়ক এরশাদ মাহমুদ’র সূর্যমুখী 2

জানতে চাইলে এরশাদ মাহমুদ চট্টগ্রাম খবরকে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে আমার শ্রদ্ধেয় আব্বা অ্যাডভোকেট নুরুচ্ছফা তালুকদার মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনুসারী এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক। তাঁর কন্যা দেশ গড়তে রাতদিন পরিশ্রম করছেন। আমি চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থেকে স্বনির্ভর দেশ গড়ার পথের পথিক মাত্র। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছি।

স্বপ্ন দেখাচ্ছে ‘পরিবর্তনের নায়ক এরশাদ মাহমুদ’র সূর্যমুখী 3

সুখবিলাস ফিশারিজ এন্ড প্লানটেশনের ব্যবস্থাপক টিটু বড়ুয়া বলেন, মাননীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী মহোদয়ের ছোটভাই এরশাদ মাহমুদ মূলত দেশের ভোজ্যতেল সংকটের সমাধানের লক্ষ্যে সূর্যমুখী ফুল চাষে মনোনিবেশ করেছেন। আমরা আশাকরছি সামনে আরও বৃহদাকারে সূর্যমুখী ফুলের চাষের উদ্যোগ নিতে পারবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm