হাজারো নেতাকর্মীর ফুলে সিক্ত হলেন সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ

দ্বাদশ জাতীয় সাংসদ নির্বাচনের পরদিন হাজারো নেতাকর্মীর ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়েছেন চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসন থেকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

সোমবার (৮ জানুয়ারি) রাতে চট্টগ্রাম নগরীর বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের লোকজন তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। নেতাকর্মীরা তাকে হাতে ফুলের তোড়া এবং গলায় ফুলের মালা পরিয়ে দেন।

এর আগে, আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়ী হওয়ার খবরে মিষ্টি বিতরণ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আনোয়ারা ও কর্ণফুলী উপজেলার কর্মী-সমর্থকরা। এছাড়াও স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের মাঝে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। তারা সকল এলাকায়, বিভিন্ন হাট-বাজারে ও চা-দোকানে আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করে।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম.এ মান্নান চৌধুরী, কর্ণফুলী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফারুক চৌধুরী, সহ সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য এস.এম আলমগীর চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন, সোলাইমান তালুকদার, ভূমিমন্ত্রী একান্ত সচিব রিদ্ওয়ানুল করিম চৌধুরী সায়েম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বৈরাগের চেয়ারম্যান নোয়াব আলী, সুগ্রীব মজুমদার দোলন, আবু সৈয়দ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাহাবুদ্দিন, সগির আজাদ, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন চৌধুরী মুরাদ, আজিজুল হক নসু, উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি চাতরীর চেয়ারম্যান আফতাব উদ্দিন চৌধুরী সোহেল, কর্ণফুলী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. শাহেদুর রহমান শাহেদ, ভূমিমন্ত্রী সহকারী ব্যক্তিগত সচিব অ্যাডভোকেট ইমরান হোসেন বাবু, চেয়ারম্যানদের মধ্যে আমিন শরীফ, এম.এ কাইয়ূম শাহ্, কলিম উদ্দিন, মাষ্টার মোহাম্মদ ইদ্রিছ, অসীম কুমার দেব, বড়উঠানের চেয়রাম্যান মোহাম্মদ দিদারুল আলম, যুবলীগের আহ্বায়ক শওকত ওসমান, যুগ্ম আহবায়ক অনুপম চক্রবর্তী, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা রবিউল হায়দার, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ এরফান আলীসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, আপনারা চতুর্থ বারের মতো আমাকে সাংসদ নির্বাচিত করে যে সম্মান দেখালেন তার ঋণ আমি কোনদিন শোধ করতে পারবো না। তবে প্রতিদান হিসাবে কথা দিয়ে যাচ্ছি, যতদিন বেঁচে থাকবো সুখে-দুখে আপনার পাশে থেকে আনোয়ারা-কর্ণফুলীর মানুষের খেদমত করে যাবো। বর্তমান সরকার উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। এ কারণ এ দেশের মানুষ আবারও আওয়ামীলীগ সরকারকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করলেন।

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।