৬১ রানে আফগানদের হারালো বাংলাদেশ

0

দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বোলিং নৈপুণ্যে ৬১ রানে আফগানদের হারালো বাংলাদেশ। এ ম্যাচে বাঁহাতি অর্থডক্স স্পিনার নাসুম আহমেদ ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন।

বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বেলা ৩টায় ম্যাচটি শুরু হয়। এ ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করা বাংলাদেশ ২০ ওভারে ১৫৫ রান করে। জবাবে ১৭ দশমিক ৪ ওভারে ৯৮ রানে গুঁটিয়ে যায় আফগানরা।

দ্বিতীয় ইনিংসে ১৫৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামে আফগানরা। ৪ বল খেলার মাথায় ভাঙ্গে ওপেনিং জুটি। ব্যক্তিগত ০ রানে সাজঘরে ফেরেন রহমানউল্লাহ গুরবাজ। গুরবাজের উইকেটটি নেন নাসুম আহমেদ।

হজরতউল্লাহ যাযাইও ফেরেন নাসুম আহমেদের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে। তিনি করেন ৬ রান। দারুয়স রাসোলিকেও দ্বিতীয় ওভারের তৃতীয় বলে ফেরান নাসুম। রাসোলি মাত্র ২ রান যোগ করেন।

আফগান শিবিরে সর্বোচ্চ রান যোগকারী নাজিবুল্লাহ জর্ডান ফেরেন সাকিব আল হাসানের বলে। তিনি করেন ২৭ রান। ৫ম ওভারের তৃতীয় বলে নাসুম ফেরান করিম জান্নাতকে। করিম জান্নাত করেন ৬ রান। আফগান দলের অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী করেন ১৬ রান। তিনি ফেরেন সাকিব আল হাসানের বলে।

আফগান দলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান করেন আজমতউল্লাহ ওমরযায়। তিনি ব্যক্তিগত ২০ রানে ফেরেন মুস্তাফিজুর রহমানের বলে। রশিদ খান, কোয়াস আহমেদ, মুজিবুর রহমান ফেরেন শরিফুল ইসলামের বলে। রশিদ করেন ১ রান। কোয়াস আহমেদ করেন ৮ রান। মুজিবুর রহমান করেন ৪ রান।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার করেন ১৭ রান। আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাইম করেন ২ রান। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে নাইম ফেরেন ফজলহক ফারুকি বলে। দলীয় ২৫ রানে রশিদ খানের বলে ফেরেন মুনিম শাহরিয়ার। মাত্র ৫ রান যোগ করে ফেরেন সাকিব আল হাসান।

কোয়াস আহমেদের বলে আউট হন তিনি। মাহমুদুল্লাহ এ ম্যাচে করেন ১০ রান। তিনি ফেরেন আজমতউল্লাহ ওমরযায় এর বলে। ব্যাটিংয়ে ম্যাচে ঝলক দেখায় লিটন দাস। তিনি ২টি ছক্কা ও ৪টি চার হাঁকিয়ে করেন ৬০ রান। লিটন দাসকে ফেরান ফজলহক ফারুকি।

বাংলাদেশ দলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান করেন আফিফ হোসাইন। তিনি করেন ২৫ রান। ফেরেন আজমতউল্লাহ ওমরযায় এর বলে। ইয়াসীর ৮ রান করে রান আউট হন। মেহেদী হাসান ৫ রান করে রান আউট হন। ৯ম উইকেট জুঁটিতে আপরাজিত ছিলেন নাসুম আহমেদ ও শরীফুল ইসলাম। নাসুম করেন ৩ রান। শরীফুল করেন ৪ রান।

বাংলাদেশের বোলারদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট নেন শরীফুল ইসলাম। তিনি নেন ৩টি উইকেট।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm