পুনরায় চালু হচ্ছে চিটাগাং কেমিক্যাল কমপ্লেক্স কারখানা

0

চট্টগ্রামের বাড়বকুণ্ডে অবস্থিত দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় কেমিক্যাল উৎপাদক প্রতিষ্ঠান- চিটাগাং কেমিক্যাল কমপ্লেক্স (সিসিসি) কারখানা পুনরায় চালু করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুয়ামূন।

রোববার (৩ এপ্রিল) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে শিল্পমন্ত্রী এমন তথ্য জানান মন্ত্রী।

শিল্পমন্ত্রী আরও জানান, কারখানা প্রাঙ্গণে একটি নতুন ক্লোর-অ্যালকালি এবং ক্লোরিন সম্পর্কিত বেসিক কেমিক্যাল, কমপাউন্ড (পিভিসি) প্ল্যান্ট স্থাপনের লক্ষ্যে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে আর্থ-কারগরি সম্ভাব্যতা সমীক্ষা সম্পাদনের জন্য একটি প্রতিষ্ঠান থেকে আরএফপি-এর প্রস্তাব পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত প্রস্তাবটি মূল্যায়নের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬৫ সালে ৯১ একর জমি নিয়ে প্রতিষ্ঠিত দুটি কারখানা স্বাধীনতা পরবর্তী সময় একীভূত করে চট্টগ্রাম কেমিক্যাল কমপ্লেক্স (সিসিসি) নামে জাতীয়করণ করা হয়। এই কারখানায় উৎপাদিত হাইড্রোক্লোরিক এসিড, কস্টিক সোডা, তরল ক্লোরিনসহ প্রয়োজনীয় কেমিক্যাল সরবরাহ হতো বিভিন্ন শিল্প কারখানায়।

লাভজনক এই প্রতিষ্ঠানে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১৯৯৬ সালে ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে বিএমআরই (ব্যালেন্সিং, আধুনিকায়ন, বিস্তার এবং প্রতিস্থাপন) করা হয়। এরপর উৎপাদন আরও বৃদ্ধি পায়। জন্ম থেকেই লাভজনক এ প্রতিষ্ঠান ২০০২ সালে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

৩৭ বছর চালু থাকার পর এই প্রতিষ্ঠান বন্ধের জন্য বেসরকারি কেমিক্যাল উৎপাদনকারীদের সিন্ডিকেটের সাথে সংশ্লিষ্টদের যোগসাজশকে দায়ী করা হয়।

বর্তমান সরকার সিসিসি চালুর উদ্দেশে ২০০৯ সালে প্রায় ১১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে চীনা কোম্পানি ‘ওয়াং এনিয়ং সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি’র মাধ্যমে কারখানাটির সংস্কারকাজ শুরু করে। ২০১৫ সালের শেষ নাগাদ কারখানাটি প্রস্তুত হলেও বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংকটের অজুহাত দেখিয়ে সরে যায় চীনা কোম্পানিটি।

প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় অবশেষে চট্টগ্রাম কেমিক্যাল কমপ্লেক্স চালু হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। শুধু সিসিসি নয়, প্রধানমন্ত্রীর উৎপাদনমূখী মনোভাবে গত ২০০৯ থেকে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৭১৫টি বন্ধ শিল্প কারখানা চালু করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm