সন্দ্বীপে স্পিডবোট ডুবিতে তদন্ত কমিটি

0

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ চ্যানেলে স্পিডবোট ডুবে কিশোরী আনিকার মৃত্যু ও তার দুই বোনসহ তিন শিশু নিখোঁজের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে উপজেলা প্রশাসন। বৈরি আবহাওয়ার মধ্যেও কেন ওই বোটটি যাত্রা করেছিল, এখানে কারও গাফিলতি ছিল কি না তা তদন্ত করবে কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করে সন্দ্বীপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সম্রাট খীসা বলেন, ‘বৈরি আবহাওয়ার মধ্যেও কেন ওই বোটটি যাত্রা করেছিল, এখানে কারও গাফিলতি ছিল কি না; এসব বিষয় তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে সাত দিন সময় দেওয়া হয়েছে।’

কমিটিতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মঈন উদ্দিনকে আহবায়ক ও সন্দ্বীপ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নূর আহমেদকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। একজন করে সদস্য রাখা হয়েছে ফায়ার সার্ভিস ও কোস্ট গার্ড থেকে।

প্রসঙ্গত, সীতাকুণ্ডের কুমিরা ঘাট থেকে সন্দ্বীপের মাইটভাঙ্গা ঘাটে যাওয়ার পথে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সন্দ্বীপ চ্যানেলে কালবৈশাখি ঝড়ের কবলে পড়ে। পরে জেলেদের জালে বোটের পাখা আটকে গেল স্পিডবোটটি ডুবে যায়।

স্পিডবোটটিতে ২২ জন যাত্রী ছিল। তাদের মধ্যে ১৮ জন সাঁতরে কূলে উঠতে পারলেও নুসরাত জাহান আনিকার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এখনো নিখোঁজ রয়েছে তিন শিশু।

আরও পড়ুন:
প্রবাসী পিতাকে বিদায় দিয়ে না ফেরার দেশে ৩ বোন
দুই সংস্থার টানাটানিতে অনিরাপদ সন্দ্বীপ যাত্রা

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm