‘শেফালী ঘোষের সম্পত্তি ইসকনের কাছে বিক্রির আইনী সুযোগ নেই’

0

একুশে পদক প্রাপ্ত শিল্পী শেফালী ঘোষের পুত্রবধু দিপা দত্ত আইন অনুযায়ী সম্পত্তি বিক্রির সুযোগ নেই বলে দাবী করেছেন শেফালী ঘোষের নিকত্মীয়রা। একই দাবীর সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে ভিডিও কলে আমেরিকা থেকে অংশ নেন শেফালী ঘোষের ছেলে সুশান্ত দত্ত নোটন।

রোববার (৫ জুন) বিকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা অভিযোগ করেন ইসকন জোর করে অন্য পরিবারগুলোকে উচ্ছেদ করার পাঁয়তারা করছে।

তিনি লিখিত বক্তব্যে তারা বলেন, ননী গোপাল দত্তের এখনো প্রথম স্ত্রী, দুই পুত্র সন্তান ও কন্যা বেঁচে আছেন। তাদের জমি এখনো ভাগাভাগি হয়নি। দিপা দত্ত এককভাবে এই সম্পত্তি বিক্রি করতে পারে না বা ইসকন ক্রয় করতে পারে না।

ওই জায়গা ১৯ পরিবার যখন ক্রয় করেছিল তখন একটি শর্ত ছিল কেউ যদি নিজের জায়গা বিক্রি করতে হয় অন্য পরিবারগুলোর কাছেই বিক্রি করতে হবে। বাইরে বিক্রি করা যাবে না। লোকনাথ মন্দির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে এবং ১৯ পরিবার ও নন্দন কানন সমাজ কল্যাণ সমিতির সম্মতিক্রমে রতন কুমার বিশ্বাস ইসকনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

সুশান্ত দত্ত নোটন ইসকন থেকে তার পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের দাবী জানান। ননী গোপাল দত্ত ও একুশে পদক প্রাপ্ত আঞ্চলিক গানের রানী খ্যাত শিল্পী শেফালী ঘোষের সম্পত্তি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্টমন্ত্রী ও স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে দোষীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান রতন কুমার বিশ্বাস, শেফালী ঘোষের নিকত্মায়ী টিটু ভৌমিক, রাকেশ দত্ত, ধীমান বিশ্বাস, সৌমেন পালিত, কৃষণা দাশ, শ্রিপ্রা সরকার, রন্টি সরকার, বিউটি দাশ, ঝুমু দত্তসহ ওই সম্পত্তির অংশদার ১৯ পরিবারের সদস্যরা।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm