কালুরঘাটের ‘হানিফ-পাপ্পী-ববি’র মাদক সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে সোচ্চার এলাকাবাসী

0

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মনছুর আলম পাপ্পী ও তার ভাই মো. আলম ববিকে নগরীর কালুরঘাট এলাকার মাদক পাচার সিন্ডিকেটের গডফাদার উল্লেখ করে তাদের আইনের আওতায় আনার দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। এসময় হিজড়া সেজে মাদক পাচারকারী হানিফ ও তার ভাই ইয়াছিনের গ্রেপ্তারের দাবী করা হয়।

রোববার (২০ নভেম্বর) চট্টগ্রামের চান্দগাঁও থানার সামনে এবং ক্ষতিগ্রস্ত পুলিশ ফাঁড়ির সামনে মানববন্ধন করে কালুরঘাটের এলাকার শত শত মানুষ। মানববন্ধনে তারা চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী হানিফ এবং তাদের নেপথ্য গডফাদারদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান। এসময় বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কালুরঘাটে মাদক ব্যবসা করে আসছে হানিফ ও তার সহযোগীরা। শনিবার রাতে হানিফ ও দেলোয়ারকে আটক করার পর হানিফের বোন নাজমার নেতৃত্বে বেশকিছু যুবক কালুরঘাট ব্রিজের পশ্চিম পাশের ‘রেলওয়ে মুরিং ঘাটে ‘ অবস্থান নেয়। সেখান থেকে যুবকদের হিজড়া সাজিয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা করা হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে থেকে ইজারা নেওয়া এই যাত্রী পারাপারের ঘাটকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে নদীপথে ইয়াবা পাচার করে আসছে ‘পাপ্পি-ববি সিন্ডিকেট’।

এদিকে, রোববার সকালে মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শন করেছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায়। এসময় এলাকাবাসী বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন মাদক ব্যবসায়ী চক্রের বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত শনিবার (১৯ নভেম্বর) ইয়াবসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের পর কালুরঘাট পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা করে দুর্বৃত্তরা। আটক দুই মাদক ব্যবসায়ীকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এসময় আহত নাজমা আক্তার নামের এক ট্রান্সজেন্ডারের মৃত্যু হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm