দুই বছর পর সেই কোলাকুলির ঈদ, পাশে দাঁড়ানোর ঈদ

0

কেটেছে করোনা ভীতি, নেই কোন বিধি-নিষেধের সীমাবদ্ধতা। স্বাভাবিক চট্টগ্রামসহ বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি। আর তাই দুই বছর পর এবার পাশাপাশি দাঁড়িয়ে একে অন্যের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কোলাকুলি করে এবার ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে দেশবাসী।

আজ মঙ্গলবার এমন দৃশ্যই চোখে পড়েছে নগরীর জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদসহ বিভিন্ন ঈদ জামাতে।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) তত্ত্বাবধানে নগরীর জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদে ঈদুল ফিতরের প্রথম ও প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ মে) সকাল ৮টায় প্রথম ঈদ জামাতে ইমামতি করেন জমিয়াতুল ফালাহ জাতীয় মসজিদের খতিব হযরতুল আল্লামা সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী।

এ সময় সারা বিশ্বে নিপীড়িত মুসলমানদের জন্য দোয়া কামনা করা হয়েছে।

এছাড়া বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনার পাশাপাশি ফিলিস্তিনসহ নিপীড়িত-নির্যাতিত মুসলমানদের জন্য আল্লাহর দরবারে বিশেষ মোনাজাত করেন তাঁরা। ঈদ জামাতে চট্টগ্রামে বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। পরে নামাজ শেষে একে অপরের কোলাকুলির মধ্য দিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

এর আগে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে মুসল্লিদের জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়েছে। সকালে মসজিদের প্রবেশমুখের ৩টি গেইটে আর্চওয়ে স্থাপন। নিয়মিত ডিবি, সাদা পোশাকে ও ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের বিভিন্ন পয়েন্টে দায়িত্ব পালন করতে দেখা যায়। এ সময় প্রতিবন্ধকতা দিয়ে মসজিদ সংলগ্ন ওয়াসা মোড় থেকে আলমাস সিনেমামুখী সড়কটি সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

একইদিন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে কেন্দ্রীয় ঈদ জামাত কমিটির প্রধান ঈদ জামাত সকাল ৯ টায় এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের সামনের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ঈমামতি করেন বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ হযরত মাওলানা ড. সাইয়েদ মুহাম্মদ আবু নোমান।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm